২ জানুয়ারি থেকে বাবা-মাকে স্পন্সরের ‘ইচ্ছাপত্র’ গ্রহণ শুরু

68

বাংলা কাগজ ডেস্ক : বাবা-মাকে স্পন্সর করে কানাডায় নিয়ে আসার জন্য আগামী ২ জানুয়ারি থেকে ‘ইচ্ছা পত্র’ (ইন্টারেস্ট টু স্পন্সর) গ্রহণ শুরু হবে। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি দুপুর পর্যন্ত এই আবেদন গ্রহণ করা হবে। স্পন্সরের ইচ্ছা প্রকাশ করে জমা দেওয়া আবেদনগুলো থেকে লটারির মাধ্যমে ১০ হাজার প্রার্থীকে চূড়ান্ত আবেদনের জন্য বাছাই করা হবে। ইমিগ্রেশন ও সিটিজেনশীপ মন্ত্রী আহমেদ হোসেন এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, আগামী ২ জানুয়ারি দুপুর থেকে ইমিগ্রেশন কানাডার ওয়েবসাইটে ‘ইন্টারেস্ট টু স্পন্সর’ এর ফরম উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। আগ্রহীরা অনলাইনেই এই ইচ্ছাপত্র জমা দিতে পারবেন। ইমিগ্রেশন মন্ত্রী কানাডার নাগরিক কিংবা স্থায়ী বাসিন্দাদের বাবা-মাকে স্পন্সর করার ইচ্ছাপত্র জমা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। নতুনদেশ ডটকম
প্রসঙ্গত, গত বছর থেকে ইমিগ্রেশন কানাডা বাবা-মা, দাদা-দাদা, নানা-নানীকে স্পন্সর করার নতুন এই নিয়ম চালু করে। প্রথমে নির্ধারিত ফরমে স্পন্সরের ইচ্ছা প্রকাশ করে আবেদন করতে হবে। তা থেকে লটারির মাধ্যমে বাছাই করে ১০ হাজার আবেদনকারী নির্ধারণ করা হবে। বাছাই হওয়া ব্যক্তিরাই কেবল স্পন্সরের জন্য চূড়ান্ত আবেদনপত্র জমা দিতে পারবেন।
প্রসঙ্গত, গত বছর লটারি বিজয়ী অনেকেই আর্থিক যোগ্যতায় উত্তীর্ণ হননি। ফলে লটারীতে বিজয়ী হয়েও স্পন্সরের জন্য চূড়ান্তভাবে আবেদনপত্র জমা দিতে পারেন নি। ইমিগ্রেশন কানাডাকে নতুন করে প্রার্থী বাছাই করতে হয়েছে।
জানা গেছে, স্পন্সরের যোগ্যতা আছে এমন প্রার্থীদের বাছাই নিশ্চত করতে এই বছর ইচ্ছাপত্রে বাড়তি তথ্য চাওয়া হয়েছে। এতে কেবলমাত্র স্পন্সর এর যোগ্যতা আছে কেবল এমন আবেদনকারীদের লটারীর মাধ্যমে বাছাই করা সহজ হবে।

শেয়ার করুন