এক্সপ্রেস এন্ট্রিতে কানাডা ঢুকে পড়ুন তাড়াতাড়ি

103

মাহমুদা নাসরিন
বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ কানাডা-রাশিয়ার পরেই যার অবস্থান। কিন্তু কানাডার জনসংখ্যা মাত্র রাশিয়ার এক পঞ্চমাংশ। কানাডা এখন বুড়োদের দেশে পরিণত হয়েছে। এদেশের জনসংখ্যার ১৬% ৬৫ বছরের উপরে এবং আগামী ২০ বছরে তা বেড়ে দাঁড়াবে ২৪% এর উপরে। (সূত্র- স্ট্যাটিসটিক্স কানাডা) । বেবি বুমাররা  সবাই অবসর নিচ্ছেন  এবং এজন্য কানাডা খুব শিঘ্রীই প্রচন্ড শ্রমসংকটে পড়বে। এদেশে জন্ম হার খুব কম। এদেশে এখন বাচ্চাদের চেয়ে বয়স্ক লোকের সংখ্যা অনেক বেশি। কনফারেন্স বোর্ড অফ কানাডা সুপারিশ করেছে এদেশের অর্থনীতিকে সচল রাখতে প্রতিবছর কমপক্ষে ৪১৩,০০০ ইমিগ্র্যান্ট আনা দরকার। আর তাই কানাডা প্রতি বছরই বেশি বেশি ইমিগ্র্যান্ট নিচ্ছে। ২০১৫-১৬ সালে ৩২০,৯৩২ জন ইমিগ্র্যান্ট এসেছে যেটি ২০১৪-১৫ সালের চেয়ে তিন গুন। আগস্টের ২৩ তারিখে সর্বশেষ এক্সপ্রেস এন্ট্রি ড্রর মাধ্যমে ৩০৩৫ জন ওঞঅ পেয়েছেন। সর্ব নিম্ন ঈজঝ পয়েন্ট ছিল ৪৩৪।
আগস্টের ২ এবং ৯ তারিখে আরো দুটি ড্র হয়েছিল। শুধুমাত্র ২০১৭ সালেই ৬৩,৭৭৭ জন ওঞঅ পেয়েছেন। অর্থাৎ মেডিকেল বা সিকিউরিটিস  ইনএডমিসিবিলিটি  না থাকলে এরা  সবাই  পরিবার-পরিজন নিয়ে কানাডায় স্থায়ী বাসিন্দা হিসাবে চলে আসছেন। জানুয়ারি ২০১৫ সালে এক্সপ্রেস এন্ট্রি চালু হওয়ার পরে অর্ধেকের বেশি ওঞঅ  ২০১৭ সালেই দেয়া হয়েছে। ২৬শে মের প্রভিন্সিয়াল নোমিনীতে সর্বনিম্ন ঈজঝ স্কোর ছিল ৭৭৫, আর ফেডারেল স্কীলড ট্রেড ক্যাটাগরীতে সর্বনিম্ন স্কোর ছিল মাত্র ১৯৯। সাচকাচুয়ান কোনো জব অফার ছাড়াই এক্সপ্রেস এন্ট্রি এবং অকুপেশন ইন ডিমান্ড ক্যাটাগরীতে আরো লোক নেয়ার অনুমতি  পেয়েছে। ২০১৫ সাল  থেকে  সাচকাচুয়ান এই ক্যাটাগরীতে স্কীলড ইমিগ্র্যান্ট নিচ্ছে। এইসব নোমিনীরা ৬০০ এক্সট্রা পয়েন্ট পাওয়াতে খুব সহজেই কানাডায় ইমিগ্রেশন পেয়ে যাচ্ছে। মানিটোবা, ক্যুইবেক, নোভাস্কোশিয়া, ব্রিটিশ কলাম্বিয়া, আলবারটাসহ  সব প্রভিন্সেই প্রভিন্সিয়াল নমিনী প্রোগ্রাম আছে। ফলে প্রচুর ইমিগ্র্যান্ট জব অফার ছাড়াই কানাডা চলে আসতে পারছে। জুন ৬, ২০১৭ তে এক্সপ্রেস এন্ট্রির ঈজঝ পয়েন্ট সিস্টেমে কানাডিয়ান জব অফার এর জন্য মাত্র ৫০- ২০০ (ঘঙঈ এর উপর নির্ভর  করে) নম্বর ছিল। আগে এখানে ৬০০ নম্বর ছিল- ফলে শুধুমাত্র স্কিল দিয়ে ঢোকা কঠিন ছিল। এখন কানাডায় আপন ভাই বোন থাকলে পয়েন্টস আছে, ফ্রেঞ্চ ল্যাঙ্গুয়েজে স্কিল এর জন্য পয়েন্টস আছে। যারা কানাডায় পড়াশুনা এবং চাকরি করেছেন তাদের জন্যও পয়েন্টস আছে। কাজেই আর দেরী নয়- এক্ষনি এক্সপ্রেস এন্ট্রির মাধ্যমে পরিবার-পরিজন নিয়ে কানাডা চলে আসুন। কোনো প্রশ্ন থাকলে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।
মাহমুদা  নাসরিন: ক্যানবাংলা ইমিগ্রেশন সার্ভিসেস, ইমেইল- nasrinmahmuda8@gmail.com

শেয়ার করুন