দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

6

অনলাইন ডেস্ক : দক্ষিণ আফ্রিকার কৃষ্ণাঙ্গ সন্ত্রাসীর হাতে আবারো খুন হলেন ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার আমানুল্লাহপুরের ছোট হুজুরের বাড়ির মফিজুর রহমানের ছেলে মো. ইকবাল হোসেন (৩৫)। মঙ্গলবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৮টার দিকে দক্ষিণ আফ্রিকা ফ্রি ইস্ট প্রভিন্স বোসাবেলো নামক ছোট একটি শহরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের ভাই আফ্রিকা প্রবাসী মো. সুমন জানান, ইকবাল হোসেন তার স্বদেশী ব্যবসায়িক পার্টনারের সাথে কথা বলে বিদায় দিতে দোকানের বাগলারের গেট খোলেন। তখন দোকানের বাহিরে গেলে পূর্ব থেকে ওঁৎপেতে থাকা সন্ত্রাসীরা গুলি চালায়। এ সময় ইকবালের পার্টনার দৌড়ে দোকানের ভিতরে প্রবেশ করে গেট বন্ধ করতে গেলেই সন্ত্রাসীরা ইকবালকে গুলি করে করে। তাৎক্ষণিক তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে মারা যান। ইকবালের পার্টনার দোকানের পেছনে লুকিয়ে প্রাণে রক্ষা পায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা দোকানের ভেতর প্রবেশ করে মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

পরিবার জানায়, নিহত ইকবাল ২০০৭ সাল থেকে দক্ষিণ আফ্রিকায় বসবাস ও ব্যবসা করে আসছেন। মফিজুর রহমানের ৪ ছেলে, ১ মেয়ের মাঝে ইকবাল সবার বড়। ইকবালের ৮ বছর বয়সী একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সালেহ আহাম্মদ পাঠান দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে দাগনভূঞা ইকবাল হোসেন নিহত হবার খবর শুনেছেন বলে জানান।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ আফ্রিকায় ফেনীর চার প্রবাসী যুবক গত ১৫ দিনের ব্যবধানে হত্যার শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে বিদ্যমান খুন-হামলার আতঙ্ক আরও বেড়ে গেছে।

স্থানীয় সময় গত ২ ফেব্রুয়ারি রাতে জোহানেসবার্গের সোয়েটো লোকেশনের এলডেরাডো পার্কের একটি দোকানে নাজমুল হুদা বিপ্লব (২৫) নামে এক প্রবাসীকে গুলি করে হত্যা করে কৃষ্ণাঙ্গ সন্ত্রাসীরা। তিনি দাগনভূঞা পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর শ্রীধরপুর গ্রামের হোসেন সেরাং বাড়ির আবদুর রাজ্জাক প্রকাশ রেজু মিয়ার ছেলে।

গত ২৭ জানুয়ারি রাতে দক্ষিণ আফ্রিকার জুলু নাটাল প্রভিন্সের পিটা মেরিজবার্গ শহরে প্রবাসী মোহাম্মদ শাহ পরান (৩০) হত্যার শিকার হন। তিনি ফেনী শহরের মহিপাল মধ্যম চাডিপুর ভূঁইয়া বাড়ির পেয়ার আহাম্মদ ভূঁইয়ার ছেলে।

দেশে তার স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

গত ২৩ জানুয়ারি দক্ষিণ আফ্রিকার নর্থ-ওয়েস্ট প্রভিন্সের রাস্টেনবার্গ এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার মহিন উদ্দিন (৪০)।

শেয়ার করুন