খালেদা জিয়াকে বাদ দিয়ে নির্বাচনে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না : মওদুদ

64

অনলাইন ডেস্ক : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, খালেদা জিয়াকে বাদ দিয়ে নির্বাচনে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। তিনি কি চিরদিন কারাগারে থাকবেন? ভুয়া দুই কোটি টাকার মামলা দিয়ে খালেদা জিয়াকে জেলে দেয়া হয়েছে। হাইকোর্টের দেয়া আদেশ সুপ্রিম কোর্ট আগামী মঙ্গলবার বহাল রাখবে এবং খালেদা জিয়া মুক্ত হয়ে আরও জনপ্রিয় নেতা হবেন। জেলখানায় থেকে খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তা আরও বাড়ছে। কারণ কোনো নেতাকে জেলে রাখলে তার জনপ্রিয়তা কমে না।

শুক্রবার দুপুরে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে নিজ বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

মওদুদ আহমদ বলেন, নির্বাচন হলো ক্ষমতায় যাওয়ার একমাত্র পথ। ভোটের মাধ্যমে এবং জনগণের সমর্থন থাকলে আমরা ক্ষমতায় যাবো। বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে এবং পুরোদমে করবে।। নির্বাচনের পথ ছাড়া আমাদের তো আর অন্য কোনো পথ নেই। তবে সেটি হতে অংশগ্রহণ ও প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচন এবং সংবিধান অনুযায়ী। ২০১৪ সালের মতো হলে হবে না।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচনে যাওয়ার ব্যাপারে আমাদের মধ্যে কারও কোনো দ্বিমত নেই। আমরা সব সময় বলি আমরা একটি মধ্যমপন্থী, গণতান্ত্রিক ও উদারপন্থী রাজনৈতিক দল। আমরা গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে সরকার পরিবর্তনে বিশ্বাস করি।

মওদুদ আহমদ বলেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে যে জোয়ার সারাদেশের মানুষ দেখেছে। তার চেয়ে সারাদেশের মানুষ বেশি জোয়ার দেখবে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে। সে জোয়ারে আওয়ামী লীগ ভেসে যাবে এবং ভোটের বিপ্লব ঘটবে। যার কারণে শাসক দল বিএনপিকে বাদ দিয়ে নির্বাচন করতে চায়। তারা ভয় পায়। এ জন্য সারাদেশে ৭৮ হাজার মামলায় ১১ লাখ নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে। তারপরও সরকার বিএনপি নেতাকর্মীদের দমন করতে পারেনি।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, যুবদল সভাপতি আবদুল মতিন লিটন, আবুল হাসান নোমান, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক জাহেদুর রহমান রাজন, সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর হোসেন পাভেল, মুজিব কলেজ ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন